হিন্দু ধর্ম নাকি সনাতন ধর্ম

হিন্দু ধর্ম বলে কিছু নেই। সনাতন ধর্মানুসারিদেরকে হিন্দু বলে ডাকা হয় । আর ইতিহাস সনাতন ধর্মকে বিৃকত করে সনাতন ধর্ম অনুসারি হিন্দু সম্প্রদায়ের নামে সনাতন ধর্ম নামে প্রচার ও প্রকাশ করেছে । মূলত হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ যে ধর্ম পালন করে তাকে সনাতন ধর্ম বলে । সনাতন ধর্ম হলো ঐতিহ্যবাহি ধর্ম । সনাতন অর্থ চিরন্তন। যা চিরন্তন তা সর্বদা সত্য।
সনাতন ধর্ম হ’ল জীবনের মাত্রা যা কখনই পরিবর্তিত হয় না, যা আমাদের অস্তিত্বের ভিত্তি। যেমন ভাবে জল পারে না শিতলতা ত্যাগ করতে আর আগুন পারে না উত্তাপ কে ত্যাগ করে । সনাতন ধর্ম মানুষের সেই সত্তা যা মানুষের মনূষ্যত্ব এবং মানবতাকে চিহ্নিত করে । সৃষ্টির মধ্যে মানুষেই একমাত্র জীব , যে তার সত্তাকে পরিবর্তন করতে পারে । যখন মানুষ তার সত্তাকে ত্যাগ করে তখন তার সম্প্রদায় হয়ে যায় আলাদা , আর ধর্ম ও নতুন হয়ে যায় । কিন্তু ধর্ম তো একটাই , তা সনাতন ।

‘হিন্দু’ শব্দটি অন্তর্ভুক্ত করে আমরা প্রচলিত ধর্মের সম্ভাবনা সীমাবদ্ধ করেছি আর হিন্দু শব্দটি হলো একটি ভৌগলিক পরিচয়।

সনাতন ধর্ম কি গ্রহন করা যায়?

প্রতিটি মানুষই জন্মগতভাবে .সনাতন ধর্মানুসারি। জন্মের পর মানুষ বিভিন্ন ধর্মে ধর্মান্তরিত হন। কিন্তু জন্মের সময় প্রত্যেকেই সনাতন ধর্ম নিয়ে জন্ম গ্রহন করে ।
জন্মের পরে যদি কোনও ব্যক্তি অন্য ধর্মে ধর্মান্তরিত হয় তবে তিনি ইচ্ছা করলে পূর্বের ধর্মে ফিরে আসতে পারেন।

সনাতন ধর্মে ফিরে আসতে হলে সনাতন ধর্মানুসারে কিছু বিধি বিধান আছে । যেমন যজ্ঞ । যে যজ্ঞের মাধ্যমে ভুল পথ থেকে সরে এসে সনাতন ধর্ম গ্রহন করবেন তাকে বলা হয় শুদ্ধ যজ্ঞ । শুদ্ধি যজ্ঞের দ্বারা মানুষ শুদ্ধ হয়ে জন্ম সুত্র অনুযারি সনাতন ধর্মে ফিরে আসতে পারে ।

চতুর্থ শতাব্দীতে ঋষি দেবলের নির্দেশে সমসাময়িক ঋষিগন অবিভক্ত ভারতীয় উপমহাদেশে একটি সম্মেলনের আয়োজন করেছিলেন। এই সম্মেলনেই প্রথম প্রকাশিত হয়েছিল সনাতন ধর্ম গ্রহণের পদ্ধতি।
সনাতন ধর্ম গ্রহণের জন্য পবিত্র বেদের মন্ত্র
“হে মনুষ্যগণ ঈশ্বরের গৌরব বৃদ্ধি করুন, সমগ্র বিশ্বকে আর্য ধর্মে প্রতিষ্ঠিত করুন ” (ঋগ্বেদ, 9/73/5)
কারা সনাতন ধর্ম গ্রহন করতে পারে ?
শুদ্ধ যজ্ঞের মাধ্যমে যে কেউ সনাতন ধর্মে ধর্মান্তরিত হতে পারে।

শুদ্ধি যজ্ঞের মন্ত্র ও প্রক্রিয়া ঋষি দেবলের দ্বারা “দেবল স্মৃতি” নামে শাস্ত্রে লিপিবদ্ধ আছে। সেই অনুসারে মন্ত্র পাঠ ও শুদ্ধি যজ্ঞ করে সনাতন ধর্ম গ্রহণ করা যায়।

যে কোনও ধর্মের মানুষ সনাতন ধর্মে ধর্মান্তরিত হতে পারে। এটি কেবল জন্ম সূত্র নয় যা কাউকে সনাতন ধর্ম অনুসরণ করে। যে কেউ চাইলে সনাতন ধর্ম গ্রহণ করতে পারে।
। কেউ যদি হঠাৎ ব্রেন ওয়াশ বা লোভের বশবর্তী বা প্ররোচনার কারনে চোর বা ডাকাত হয়ে যায় আর বুঝতে পারে যে তিনি ভুল পথে চলেছেন। তাহলে তিনি সিদ্ধান্ত নিতে পারেন সনাতন ধর্মে ফিরে আসার জন্য ।
একইভাবে, কেউ যদি সনাতন ধর্ম ত্যাগ করেন বা অন্য ধর্মে জন্মগ্রহণ করেন, তবে তিনি সনাতন ধর্মে ফিরে আসতে সক্ষম হবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *