ব্যবস্থাপনার সঙ্গা প্রকৃতি ও বৈশিষ্ট্য

সংঘবদ্ধ মানবজীবনে ব্যবস্থঅপনা একটি অতি গুরত্বপূর্ণ বিষয় । সামষ্টিক প্রছেস্টা যেকানে বিদ্যমান ব্যবস্থাপনার অস্তিত্ব ও উপস্থিতি ও সেখানে বিদ্যমান । কোনো প্রতিষ্ঠানের পূর্ব নির্ধারিত লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য অর্জনের জন্য জনশক্তি ও অন্যান্য বস্তুগত উপাদান , যেমন , যন্ত্রপাতি, কাঁচামাল , অর্থ, পদ্ধতি ও জায়গা প্রয়োজন হয় ।

ব্যবস্থাপনা সঙ্গাঃ
উপকরণসমূহের সর্বোচ্চ ব্যবহারের উদ্দেশ্য পরিকল্পনা, প্রণয়ন, সংগঠন, কর্মীসংস্থান, নির্দেশনা, সমন্বয় , প্রেষনা ও নিয়ন্ত্রনের মানবীয় প্রচেষ্টাকে ব্যবস্থাপনা বলে ।
ইংরেজি Management শব্দটির সমার্থক শব্দ হলো to handle অর্থাৎ চালনা করা বা পরিচালান । এই পরিচালানর সঙ্গে মানব যেমন সম্পৃক্ত তেমনি অন্যান্য উপায় উপরন ও জড়িত । এগুলো পরিচালনা সংক্রান্ত ব্যবস্থাপকের কাজকে ব্যবস্থাপনা বলে ।
নিম্নে ব্যবস্থাপনসার কয়েকটি জনপ্রিয় সঙ্গা উল্লেখ করা হলো
L.A.Allen এর মতে , ব্যবস্থাপক যা করেন তাই ব্যবস্থাপনা । management is what a manager does
জর্জ আর টেরীর মতে, মানুষ ও অন্যান্য সম্পদ সমূহ ব্যবহারের মাধ্রমে যে প্রক্রিয়ায় উদ্দেশ্যসমূহ নির্ধারন ও উদ্দেশ্য অর্জনের জন্য পরিকল্পনা , সংগঠন কর্মীদের উৎসাহিতকরণ ও নিয়ন্ত্রন কার্যাবলি সম্পাদন করা হয় তাকে ব্যবস্থাপনা বলে ।
Peter Dracker এর মতে , ব্যবস্থাপনা হলো বহুবিধ উদ্দেশ্য অর্জনকারী এমন যন্ত্র যা ব্যবসায় পরিচালনা করে ।
আমেরিকার ব্যবস্থাপনা সমিতিরি সঙ্গানুযারি, মানুষ উদ্যম সংগঠিত ও পরিচালিত করার মাধ্রমে প্রাথমিক মক্তি সম্পদগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করে মানবকুলর কল্যান সাধনে নিয়োজিত করার বিজ্ঞান বা কলাকে ব্যবস্থাপনা বলে ।
ব্যবস্থাপনা হলো প্রতিষ্ঠানের পুর্ব নির্ধারিত উদ্দেশ্য দক্ষ ও কার্যকরভাবে অর্জনের জন্য উপায় উপকরণের যথাযথ ব্যবহার কল্পে পরিকল্পনা , সংগঠন , কর্মীসংস্থান, নির্দেশনা , প্রেষনা সমন্বয়সাধন ও নিয়ন্ত্রনের সামাজিক প্রক্রিয় ।

ব্যবস্থাপনার প্রকৃতি
প্রাতিষ্ঠানিক লক্ষ্যার্জনেও এত নিয়োজিত জনশক্তি ও উপায় উপরকরণের কার্যকর ব্যবহারে ব্যবস্থাপনা হরেঅ একটি অতি অপরিহার্য সামাজিক প্রক্রিয়া । প্রতিষ্ঠানের উদ্দেশ্য ও প্রকৃতির ভিন্নতার কারণে ব্যবস্থাপনার কতিপয় সাধারণ বৈশিষ্ট্য লক্ষ করা যায় । নিম্নে এরুপ বৈশিষ্ট্যসমূহ উল্লেখ করা হলো ।
১. প্রক্রিয়া বা কাজের সমাহারঃ
ব্যবস্থপনা হরো কতিপয় ধারাবাহিক কর্ম সমস্টি বা কর্ম প্রক্রিয়া । Stoner ও অন্যান্যদের মতে Prosexx means a systematic method of handling activitics . অর্থাৎ প্রক্রিয়া হলো কর্ম সম্পপাদন বা কর্ম পরিচালনার প্রনালিবদ্ধ পদ্ধতি বিশেষ ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে লক্ষ্য অর্জনের জন্য পরিকল্পনা থেকে শুরু করে সংগঠন কর্মীসংস্থান, নির্দেশনা , প্রেষণা, সমন্বয় ও নিয়েন্ত্রণ কার্যাদি পরস্পর সম্পর্ক রেখে ধারাবাহিকভাবে সম্পন্ন করা হয় ।
২. সামাজিক প্রক্রিয়া বা কার্যক্রমঃ
ব্যবস্থাপনা একটি প্রক্রিয়া এবং সেই সঙ্গে একটি সামাজিক প্রক্রিয়া । কারণ ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠানের জনশক্তিতে সংঘবদ্ধ করে তাদেরকে সমাজবদ্ধ করে , পারষ্পরিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করে পরস্পর সহযোগী করে তোলে এবং প্রত্যেকের পৃথক কর্মপ্রায়সকে সমন্বিত করে ব্যক্তিগত ও প্রাতিষ্ঠানিক উদ্দেশ্য অর্জনে সক্ষম করে তোলে ।
৩. লক্ষ্য অর্জনের উপায়ঃ
যেকোনো সংঘবদ্ধ প্রচেষ্টার মূলে একটা লক্ষ্য বা উদ্দেশ্য ক্রিয়াশীল থাকে । আর এ লক্ষ্য অর্জনের জন্যই ব্যবস্থাপনা কার্যক্রম পরিচালিত হয় । এ কারণেই বিভিন্ন লেখক ব্যবস্থাপনাকে লক্ষ্যার্জনের উপায় হিসেবে গণ্য করেছেন ।
৪. কাজ আদায়ের কৌশলঃ
প্রতিষ্ঠঅনে নেয়োজিত উপায় উপকরণের কার্যকর ব্যবহারের প্রতি ব্যবস্থপনা গুরত্বারোপ করে । আর এজন্য ব্যবস্থাপনা সবসময় প্রতিষ্ঠানে নিয়োজিত জনশক্তির কাছ থেকে যথাযথ কাজ আদায়ে সচেষ্ট থাকে ।
ব্যবস্থাপনার সকল কর্ম প্রচেষ্টাই জনমক্তির কাছ থেকে যথাযথ কাজ আদায়ের লক্ষ্যে পরিচালিত হয় ।
৫. দলীল কর্ম প্রচেষ্টার সঙ্গে সম্পৃক্ততাঃ
যেকোনো দলীয় কর্ম প্রচেষ্টার ক্ষেত্রে ব্যবস্থাপনা অত্রন্ত গুরত্বপুর্ণ বিবেচিত হয় । ব্যক্তি যখন একলা কোনোকিছু পাওয়ার জন্য প্রয়াস চালায় তখন ব্যবস্থাপনা বলে সেখোনে কিছুই থাকে না । যখন এরুপ প্রচেষ্টার অনেক লোক একত্রে কাজ করে তখন স্বাভাবিকভাবে সংগঠন প্রতিষ্ঠা লাভ করে ও এর পরিচালনার জন্য ব্যব্স্থাপনা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে পড়ে ।
৬. মানবীয় কর্মপ্রয়াসঃ
প্রতি্ষ্ঠানে নিয়োজিত উপায় উপকরণের কার্যকর ব্যবহারের লক্ষ্য ব্যবস্থাপনা মানবীয় কর্ম প্রয়াসের সঙ্গে সম্পৃক্ত । ব্যবস্থাপনা কার্য যারা পরিচালনা করেন তাদের কে ব্যবস্থাপক বলে । প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন পর্যায়ে নিয়োজিত ব্যবস্থাপকগণ তাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব পালনের লক্ষ্যে চিন্তনীয় ও করণীয় উভয় ধরনের কর্মপ্রয়াস পরিচালনা করেন । আর এরুপ মানবয়ি প্রচেষ্টার ফলশ্রুতিতেই প্রতিষ্ঠানে নিয়োজিত মানবীয় ও বস্তুগত উপকরণাদির কার্যকর ব্যবহার করে লক্ষ্যার্জন সম্ভব হয় ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *