কেন্দ্রীয় ঔষধাগারের ৩ জনকে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ দুর্নীতির অভিযোগে

দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) নিম্নমানের মুখোশ, পিপিই এবং অন্যান্য স্বাস্থ্য সরঞ্জাম কেনার ক্ষেত্রে দুর্নীতির অভিযোগে কেন্দ্রীয় ফার্মাসির (সিএমএসডি) উপ-পরিচালকসহ আরও তিন কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। সোমবার দুদকের প্রধান কার্যালয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকা হয়েছিল।

স্বাস্থ্য মন্ত্রকের অধীনে তিন সিএমএসডি কর্মকর্তাকেও রবিবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল।
আজ যাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তারা হলেন কেন্দ্রীয় ফার্মাসির উপ-পরিচালক। জাকির হোসেন, প্রবীণ স্টোরকিপার। ইউসুফ ফকির ও প্রাক্তন মেডিকেল অফিসার (চিফ কো-অর্ডিনেটর) জিয়াউল হক।

সোমবার দুদকের পরিচালক ও তদন্ত দলের প্রধান মীর মোহাম্মদ মো জয়নুল আবেদিনের নেতৃত্বে তদন্ত দল তিন কর্মকর্তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে, কমিশনের পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন। এর আগের দিনই সেন্ট্রাল ফার্মাসির সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) মোঃ শাহজাহান, ডেস্ক অফিসার মো সাব্বির আহমেদ ও স্টোর অফিসার কবির আহমেদকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল।
দুদক সূত্রে জানা গেছে, একই অভিযোগ গত ৮ জুলাই জেএমআই হাসপাতাল রিকোয়ারমেন্ট ম্যানুফ্যাকচারিং লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও করেছিলেন। আবদুর রাজ্জাক ও তমা কনস্ট্রাকশন কো-অর্ডিনেটর দুদকের তদন্ত দল (মেডিকেল টিম) মোঃ মতিউর রহমানকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। তাদের সাথে ঢাকা কেন্দ্রীয় আন্তর্জাতিক মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের চেয়ারম্যান এবং লিক্সন মার্চেন্ডাইজ অ্যান্ড টেকনোক্র্যাট লিমিটেডের মালিক উপস্থিত ছিলেন। মোতাজ্জারুল ইসলাম ওরফে মিঠু ও এলান কর্পোরেশন লিমিটেডের চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম আমিনকে তলব করা হয়েছে। তবে তারা অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে দুদকে আসেননি।

কমিশন, পিপিই সহ নিম্নমানের মুখোশ ও অন্যান্য স্বাস্থ্যসেবা পণ্য ক্রয়ে দুর্নীতির অভিযোগ তদন্তের জন্য দুদকের পরিচালক জয়নুল আবেদিনের নেতৃত্বে চার সদস্যের তদন্ত দল গঠন করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *