আসুন জেনে নেই শ্রীমদ্ভগবদগীতার কতিপয় শব্দের কিছু অর্থ

কুরুক্ষেত্র কী? কুরুক্ষেত্র কী, শুধু মাত্র খালি মাঠ? পাণ্ডব কে? দুর্যোধন কে? ভীষ্ম কে? শ্রীকৃষ্ণ কে?
মহাভারত হ’ল মানব জীবনের বাস্তবিক দর্শন, যেখানে আনন্দ বেদনা, আশা, হতাশা, ধর্ম এবং অনাচারের বৈশিষ্ট্ তুলে ধরা হয়েছে ।
1) কুরুক্ষেত্র কী?
মানুষের চিন্তার চারণভূমি। সেই চিন্তার চারণভূমিতে, প্রতিদিন – লোভের সাথে বিসর্জনের সংঘাত, সত্যের সাথে মিথ্যার দ্বন্দ্ব ইত্যাদি ঘটে চলেছে।
২) কৌরব কারা?
মানুষের ধ্বংসাত্মক গুণাবলী।
৩) পাণ্ডবরা কারা?
মানুষের কাঠামোগত গুণাবলী।
কৌরব শক্তি:
1) দুর্যোধন কে?
আমাদের লোভ এবং অহংকার ।
২) দুঃশাসন কে?
লালসা. দস্যুতা ও কামনা, চরিত্রহীনতা ।
৩) ধৃতরাষ্ট্র কে?
আমাদের অন্ধ স্নেহ / অন্ধ ভালবাসা. বিবেকহীন চিন্তা চেতনা ।
৪) শকুনি কে?
আমাদের কুটিলতা।
৫) কর্ণ কে?
আমাদের গর্ব.
6) ভীষ্ম কে?
আমাদের গর্ব এবং প্রতিশ্রুতি।
7) দ্রোণাচার্য কে?
আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থা।
8) শিখণ্ডি কে?
আমাদের দুর্বলতা।
9) কর্ণের রথের “চাকা” বসে যাওয়ার অর্থ কি ?
আমাদের দুর্ভাগ্য।
পাণ্ডব শক্তি:
1) যুধিষ্ঠির কে?
আমাদের সত্য, ধর্ম এবং ত্যাগ।
২) ভীম কে?
আমাদের পুরুষত্ব এবং বীরত্ব।
৩) অর্জুন কে?
আমাদের নিষ্ঠা এবং শ্রম।
৪) অভিমন্যু কে?
আমাদের যৌবনের শক্তি।
‘বিদুর কে?
আমাদের বিবেক।
কৃষ্ণ কে?
আকর্ষন শক্তি । পরমাত্মার প্রতি আত্মার আকর্ষন । আমাদের আত্মা পরমাত্মার অংশ। যা আমাদের আলোর পথে পরিচালিত করে।
দ্রৌপদী কে?
আত্মার সম্মান ।
দ্রৌপদীর বস্ত্র হরণের অর্থ কি ?
আত্মার অপমান. লাঞ্চনা ।
কুন্তির কুমারী মাতৃত্ব কী?
সমাজের কুসংস্কার মূলক রীতিনীতির বিরুদ্ধে বিদ্রোহ।
তাহলে কি দেখছেন …? মহাভারতে, মানুষের সমস্ত ক্রটি এবং গুণাবলী একসাথে এক চরিত্রে রূপায়নেই হলো মহাভারত ।
অর্জুনের উদ্দেশ্যে শ্রীকৃষ্ণের বাণী হলো একেকটা জীবন দর্শন । যেখানে প্রতিটি বিষয়ের সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে যুক্তি যুক্ত ভাবে ।
সমস্ত মানুষ জন্মগত প্রাণী। যদি তাকেই মানুষ হতে হয় তবে তাকে পাণ্ডব হয়ে কুরুক্ষেত্রের যুদ্ধ জিততে হবে। আপনি কিভাবে যুদ্ধে জিতবেন? আপনাকে মহাভারতের এই দর্শন শিখতে হবে, এবং জীবনে প্রয়োগ করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *