অতিরিক্ত অবহেলা ও অপমানের কারণে সুশান্ত শিং এর আত্মহত্যা কঙ্গনা ও অঙ্কিতার এমনটাই দাবি

কঙ্গনা রানাউত অঙ্কিতা লোখান্দ কে বলেছিলেন যে সুশান্ত সিং কে এত পরিমাণ অপমান করা হয়েছিল যে তার পক্ষে তা সহ্য করা অসম্ভব ছিল এবং “এটি মন থেকেও গ্রহণ করতে পারেন নি ।
কঙ্গনা রানাউত বলেছেন আমি সুশান্ত সিং রাজপুতের প্রাক্তন বান্ধবী অঙ্কিতা লোখণ্ড কে জানিয়েছি তাকে “অপমান করার বিষয় বিষয় টি ।

গত মাসে আত্মহত্যা করা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পরে চলচ্চিত্র মাফিয়ার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে যোগ দিয়েছিলেন কঙ্গনা রানাউত। একটি নতুন সাক্ষাত্কারে, তিনি দাবি করেছেন যে তাঁর প্রাক্তন বান্ধবী অঙ্কিতা লোখন্দে বলেছিলেন বলিউডের কতিপয় তারকারা তাকে নিয়ে নেতিবাচক সমালোচনা করে প্রচারণা চালায় এবং পেশাদার বিচ্ছিন্নতার মুখে তাকে এতটাই ‘অপমান’ করে যা মানার মত নয় ।
টাইমস অব ইন্ডিয়ার সাক্ষাতকারে কঙ্গনা বলেন তার প্রিয় বন্ধু এবং মানিকর্ণিকা কে , সংশান্ত সিংয়ের মৃতুর পর তার সহ অভিনেত্রী অঙ্কিতা এ বিষয়ে ভাল ধারণা আছে , যা আমরা ততটা জানি না ।
“আমি যখন অঙ্কিতার সাথে কথা বলি তখন অঙ্কিতা প্রথমেই বলেছিলেন যে, , সেখানে সুশান্ত শিং কে এতটাই অপমান করা হয়েছে যে, যা তিনি ভিতর থেকে সহ্য করতে পারি নি ।এটা যে কতটা শোকাবহ হবে , তা সত্যিই লজ্জস্কর , “কঙ্গনা এমনটা বলেছিলেন।

অঙ্কিতা কঙ্গনাকে বলেছিলেন, ‘অডিশনের পর অডিশন গুলোতে প্রত্যাখ্যান হওয়ার পর ও ’, সুশান্ত টেলিভিশন জগত থেকে বলিউডে জায়গা করে নিয়েছিলেন। অল্প সময়ের মধ্যেই তিনি অন্যতম তারকাদের সর্বাধিক জনপ্রিয় হয়ে উঠেন । সেই ভিত্তিতে’ এটা খুবই সংবেদন শীল যে অন্যরা এটা কিবাবে মেনে নিবে ।

কঙ্গনা আরো বলেন, “ (অঙ্কিতা) তাঁর সম্পর্কে বলেছিলেন যে তিনি হালকা পাতলা ছিলেন না। তিনি যখন নতুন ছিলেন, তিনি টুইটারে বসে ভক্তদের সাথে মজা করতেন এবং জিজ্ঞাসা করতেন, ‘আপনি আমার সম্পর্কে এমনটি কেন ভাবেন? আমার সম্পর্কে কেন এমনটি বললেন? আপনি যে ব্যক্তির কথা বলছেন তা আমি নই। অঙ্কিতা আমাকে বলেছিল যে কি অভি য়ে তো হোগা না । প্রত্যেকেরই আপনার সম্পর্কে তাদের জানার আগ্রহ থাকবে, আপনি কেন এতটা বিরক্ত? তিনি কেবল এটি নিতে পারতেন না, লোকেরা তাঁর সম্পর্কে যা ভাবেন তা তিনি নিতে পারেন নি।এমনি একটি পর্যায়ে তিনি বলেন, খারাপ জনসংযোগ, বিভিন্ন গ্যাংয়ের সাথে যুক্ত , জনসাধারণের অপমান, তিনি তা নিতে পারেন নি। এটাই যথেষ্ট – তিনি যা বলেছিলেন। “

অনুরাগ কাশ্যপ বলেছেন, সুশান্ত সিং রাজপুত তার ছবিতে ড্রাইভ বেছে নিয়েছেন, এরকম অভিনয়ের বৈধতা চান‘যশরাজ ফিল্মস থেকে ।

কঙ্গনা অঙ্কিতা কে আরো বলেছিল যে সুশান্ত তার মতো, অনেকটা ‘বুদ্ধিমান, গসিপ ( গল্প গুজব বা সমালোচনা) থেকে দূরে থাকতেন এবং শুধু তাঁর কাজে আগ্রহী ছিলেন’। তবে তিনি চেয়েছিলেন বলিউডের বৈধতা এবং গ্রহণযোগ্যতা। “আমাদের মতো লোকেরা, যখন আমরা বাইরে থেকে আসি, আমরা তাদের দ্বারা মুগ্ধ হই। অঙ্কিতা এমনকি আমাকে সুশান্তের কথাও বলেছিল। তিনি গ্রহণযোগ্য হতে চেয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ‘কঙ্গনা, সুশান্ত হুবহু আপনার মতোই ছিল… তিনি খুব বুদ্ধিমান ছিলেন, কারও সম্পর্কে গসিপ করেননি, এবং তিনি যা করেছেন তাতে বেশি বিনিয়োগ করেছেন। “তার ছোট্ট ব্যক্তিত্ব ছিল,” তিনি বলেছিলেন। শুধু পার্থক্য কেবল তিনি সবার কাছে গ্রহণযোগ্যতা চেয়েছিলেন। যা সবার থেকে তার এই কৃতুত্ব অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে ।

কঙ্গনা বলেছিলেন যে তিনি যখন প্রথমবার বলিউডে প্রবেশ করেছিলেন তখন তিনিও সব কিছুতেই ফিট হতে চেয়েছিলেন। “আমি মাথাটা সোজা করেছিলাম যদিও সেখানে চাপ ছিল, আমি বোটক্সের সাথে আমার ঠোঁট লাগিয়ে , রাসকেলের এর মতো ছবি তুলতে শুরু করলাম মরিয়া হয়ে , আমি বিকিনি পরেছিলাম যেন আমার নিউজ পত্রিকায় প্রকাশিত হয় । আর এভাবে আমি পুরস্কার জিততে চেয়েছিলাম তবে এটি আমাকে কোন ভাবেই সহায়তা করে নি বলিউডে জাগয়া করে দেওয়ার জন্য । আমি তখনও বি-গ্রেড ছিলাম এবং তারা আমাকে গ্রহণ করেনি। “
সুশান্ত ১৪ ই জুন আত্মহত্যা করে । যেখানে বেশ কয়েকটি অভিযোগ রয়েছে , পেশাদার প্রতিযোগিতাই তাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *